Breaking News
Home / আল্লাহর ওলীগণ / মুফতি শফি রহ. এর সময়ের ব্যবহার

মুফতি শফি রহ. এর সময়ের ব্যবহার

(মুসলিমবিডি২৪ডটকম)

মুফতি শফি রহ. এর সময়ের ব্যবহার

মুফতি শফি রহ. বলেন, আমি আমার নিজের সময়গুলোকে মেপে মেপে খরচ করে কাজে লাগিয়ে থাকি।

যাতে করে আমার একবিন্দু পরিমাণ সময়ও বেকার না যায়। চাই সময়টি দুনিয়ার কাজে হোক অথবা

আখেরাতের কাজে। যদি দুনিয়ার কাজে সময়টি সহিহ নিয়তে হয় তাহলে ঐ সময়টিও আখেরাতের জন্য কাজে

লাগবে। আমি নসিহত করে বলে থাকি, আমার কথাটি লজ্জার কোনো কথা না। তবে আমি তোমাদের বুঝার জন্য

বলছি। যখন টয়লেটে যায় তখন ঐ সময়টি হচ্ছে এমন যে, তখন তারা কোনো প্রকার যিকির করে না।

কিন্ত আমার তবিয়তটি এমন হয়েছিল যে, টয়লেটে বেকার থাকতে হয় আর ঐ সময়টি আমার জন্য খুব ভারি। ঐ

সময় তো কোনো কাজ হয় না। তাই ঐ সময় আমি বসে বসে বদনা পরিষ্কার করি। আমি মনে করি আমার

টয়লেটে থাকার সময়টিও যেন কাজে লাগে, বেকার না যায়। তাছাড়া দ্বিতীয় কোনো ব্যক্তি যখন বদনাটি

ব্যবহার করবে তখন তার যেন ঘৃণা না লাগে। হযরত বলেন: আমি পূর্ব থেকে এতটুকু মনে করি যে, আমার

এখানে পাঁচ মিনিট সময় লাগবে আর এই পাঁচ মিনিট সময়টা কোন কাজে লাগাব।

খানা খাওয়ার পর সঙ্গে সঙ্গে কোনো প্রকার কাজ, পড়া-লেখা করা মোনাসিব নয়। বরং খাবারের পর কমপক্ষে

দশ মিনিট রেষ্ট নেওয়া উচিৎ। তখন আমি প্রথম থেকেই ভেবে নিতাম এই সময় আমি এই বিষয়টি আঞ্জাম দিব।

আল্লামা তাকি ি দা. বা. বলেন: যে হযরতই আমার আব্বাজানের সাথে সাক্ষাতে আসতেন তিনিই

দেখেছেন; আমার আব্বাজান কাজের মধ্যে সফরও করেছেন। লিখনির কাজও চালিয়ে যাচ্ছেন। আমি দেখতাম

রিক্সায় যাচ্ছেন আবার হাতের লেখাও চালিয়ে যাচ্ছেন। রিক্সার ঝাকুনির মধ্যেও অনেক কিছু লিখে যাচ্ছেন। তিনি

ত্বপূর্ণ একটি বিষয় বর্ণনা করেছেন যা খুব মনে রাখার বিষয়। তিনি বলেন: যেই কাজটি তোমরা পরশু করবে

বলে রেখে দিয়েছ। সেই কাজটি রয়ে গেল। কাজটি আর হবে না। কাজ করার নিয়ম হচ্ছে এই, দুটি কাজের মধ্যে

তৃতীয় কোনো কাজ আসলে ঐ কাজটিও জোর পূর্বক হলেও করে নাও। তাহলে কাজটি হয়ে যাবে।

আল্লাহ তাআলা আমাদের সময়ের দেওয়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।।

আরও পড়ুন:

সময়ের হেফাজতে বুযুর্গদের ঘটনা
পড়া মুখস্থ করার সর্বোত্তম সময় ও স্থান
কিয়ামতের আলামতঃ দ্রুত সময় পার হওয়া

About মুহাম্মদ আবদুল্লাহ

আমি মাওলানা মোঃ আব্দুল্লাহ। 15ই এপ্রিল 1994 ঈসায়ি রোজ শুক্রবার মৌলভীবাজার জেলার হামরকোনায়( দাউদপুর) জন্মগ্রহণ করি। শিক্ষা জীবনের শুরুটা প্রাথমিক বিদ্যালয় দিয়ে হলেও 4 বছরের মাথায় ইসলামিক শিক্ষা অর্জনের লক্ষ্যে নিজ উদ্যোগে মাদ্রাসায় ভর্তি হই! আলহামদুলিল্লাহ! সর্বশেষ 2017 ঈসায়ি কওমি মাদ্রাসার উচ্চতর ডিগ্রী মাস্টার্স (দাওরায়ে হাদিস) হযরত শাহ সুলতান রহ. মাদ্রাসা থেকে আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল ক্বওমিয়ার মাধ্যমে সম্পন্ন করি! নিজে যা কিছু জেনেছি তা লিখনীর মাধ্যমে মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে এবং আমৃত্যু ইসলাম ও মানবতার সম্পর্কে জানতে ও জানাতে এই সাইটের সাথে সংযুক্ত হয়েছি! আল্লাহ আমাকে ও সবাইকে কবুল করুন।আমিন!!!

Check Also

অহংকারের অপকারিতা

অহংকারের অপকারিতা

(মুসলিমবিডি২৪ডটকম) ইমাম গাজ্জালী রহমতুল্লাহি আলাইহি বলেন অহংকারের অনেক অপকারিতা রয়েছে:-(এক) বড়ত্ব আল্লাহ তাআলার গুন। আর …

Powered by

Hosted By ShareWebHost