Home / ইতিহাস / ঘা-পাচড়া উপশমের মহৌষধ

ঘা-পাচড়া উপশমের মহৌষধ

হযত আব্দুল্লাহ ইবনে মোবারক (রহ.) অত্যন্ত উচ্চ পর্যায়ের একজন আলিম ছিলেন।

একবার কেউ তা বলল- আমার হাটুতে দীর্ঘ সাত বছরের পুরাতন একটি ফোড়া রয়েছে।

সব ধরণের চিকিৎসা করেছি,অনেক নামি দামি ডাক্তারদেরকে দেখিয়েছি। কিন্তু কিছুতেই কাজ হলনা।

হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে মোবারক (রহ.) তা বললেন- এমন একটি জায়গা খুঁজে বের কর, যেখানে পানি একাবরেই অপ্রতুল,লোকজনও যথেষ্ট পানি সংকটে রয়েছে,

সে জায়গায় গিয়ে একটি কুপ খনন কর।

আশা করি সেখানে একটি পানির ফোয়ারা প্রবাহিত হলে তোমার ফোড়া উপশম হবে। লোকটি তাই করল। দেখা গেল কিছুদিন পর সে সুস্থ হয়ে উঠল।

এ ঘটনা আল্লামা মুনযেরী (রহ.) ইমাম রায়হাকীর (রহ.) সূত্র ধরে বর্ণনা করেন।

াটি বর্ণনার পর আল্লামা মুনযেরী (রহ.) বললেন-এ জাতীয় একটি ঘটনা আবু আব্দুল্লাহ হাকেমের (রহ.) ও রয়েছে।

তার চেহারায় একবার ঘা হয়েছিল।বহু চিকিৎসা পরও ঘা সারল না। অনুমানিক সাত বছর যাবত তিনি এ রোগে ভুগেছিলেন।

তারপর একদিন শুক্রবারে তিনি ইমাম আবু ওসমান ছাবূনীর (রহ.) নিকট হাজির হয়ে চাইলেন।

ইমাম সাহেব তাৎখনিক করলেন, সকলেই তার দোয়াতে আমীন, বললেন।

পরবর্তী শুক্রবারে জনৈকা মহিলা একটি চিরকুট লিখে ইমাম সাবূনীর (রহ.) নিকট পাঠালেন।

তাতে লেখা ছিল-গত জুমায় আপনার সংগে শাইখ আবু আব্দুল্লাহ হাকেমের সুস্থতার করে আমি বাড়ি ফিরেছিলাম।

বাড়িতে গিয়েও আমি তার সুস্থতার জন্য অনেক করি।রাতে আমি স্বপ্ন যোগে ুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর সাক্ষাত লাভে ধন্য হই।

তিনি আমা বললেন- আবু আব্দুল্লাহকে বল সে যেন মুসলমানদের জন্য ব্যপক ভাবে পানি সরবরাহের ব্যবস্থা করে।

শাইখ হাকেম যখন এ ঘটনা শুনতে পেলেন,তৎক্ষণাৎ তার বাড়ির সম্মুখে দরজা বরাবর একটি পানির নালা খুলে দিলেন।

এভাবে মাত্র এক সপ্তাহ অতিক্রম হতে না হতেই শাইখ হাকেমের ঘা সারার আলামত দেখা গেল।

চেহারায় পূর্বের ন্যয় সুস্থতা ও তরজমা ভাব ফুঠে উঠল।এর পর তিনি কয়েক বছর জীবিত ছিলেন।

 

  • আত-তারগীব ২/৫৪

About Admin

আমার নাম: এইচ.এম.জামাদিউল ইসলাম ঠিকানা: বালাগঞ্জ,সিলেট। আমি কোরাআনের খেদমতে আছি, পাশাপাশি MuslimBD24.Com সাইটের ডিজাইনার (Editor) ও সম্পাদক এর দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি। অনলাইন সম্পর্কে মোটামুটি জ্ঞান থাকায়, তাই সময় পেলে দ্বীন ইসলাম প্রচারের সার্থে দ্বীন ইসলাম নিয়ে কিছু লেখালেখি করি। যাতে করে অনলাইনেও ইসলামিক জ্ঞান সম্পর্কে জ্ঞানহীন মানুষ, ইসলামিক জ্ঞান সহজে অর্জন করতে পারে। একজন মানুষ জন্মের পর থেকে মৃত্যু পর্যন্ত নিজের জীবনকে ইসলামের পথে চালাতে গেলে ইসলাম সম্পর্কে যে জ্ঞান অর্জন করার দরকার, ইনশা-আল্লাহ! এই ওয়েব সাইটে মোটামুটি সেই জ্ঞান অর্জন করতে পারবে। যদি সব সময় সাইটের সাথে থাকে। আর এই সাইটটি হল একটি ইসলামিক ওয়েব সাইট । এ সাইটে শুধু দ্বীন ইসলাম নিয়ে লেখালেখি হবে। আল্লাহ তায়ালার কাছে এই কামনা করি যে, আমরা সবাইকে বেশী বেশী করে ইসলামিক জ্ঞান শিখার ও শিখানোর তাওফিক দান করুন, আমিন। তাজবীদ বিষয়ে কিছু বুঝতে চাইলে যোগাযোগঃ 01741696909

Check Also

পৃথিবীর সর্বপ্রথম ঘর

পৃথিবীর সর্বপ্রথম ঘর

(মুসলিমবিডি২৪ডটকম) ১/হযরত ইবনে আব্বাস রা. থেকে বর্ণিত আছে, কাবাই সর্বপ্রথম ঘর যা হযরত নূহ আ. …

Powered by

Hosted By ShareWebHost