Breaking News
Home / ইসলাম ধর্ম / ফজরের সুন্নত পড়ার সময়সীমা

ফজরের সুন্নত পড়ার সময়সীমা

Muslimbd24.com

ফজরের সুন্নত নাজ কতক্ষণ পর্যন্ত পড়া যাবে? এর উত্তরে বলা হয়:

শুরু হয়ে গেলেও কেবল ফজরের বেলায় আগে সুন্নত পড়ে নিতে ,

ের বারান্দায় পিলার কিংবা যে কোন কিছুর আড়ালে জামাতের স্থান থেকে দূরত্ব বজায় রেখে এই সুন্নত পড়তে হবে।

তবে যদি সম্পূর্ণ জামাত ছুটে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে, তবে সুন্নত না পড়েই জামাতে শরিক হয়ে যাবে।

সূত্র: ফতোয়ায়ে মাহমুদিয়া খন্ড:১১ পৃ: ২৫৫

ফজরের সুন্নত ছাড়া অন্য কোন সুন্নত হলে জামাত শুরু হয়ে গেলে আর সুন্নতে দাঁড়াবে না, বরং জামাত শরিক হয়ে যাওয়া জরুরী।

হানাফী এবং মালেকি মাহযহাবে ফজরের সুন্নতের বেলায় জামাত শুরু হয়ে গেলেও

সুন্নত পড়ার এত গুরুত্ব এই জন্য যে, ফজরের ের পরে অন্য কোন নামাজ পড়া নিষেধ।

আবু সাঈদ (রাযি:) হতে বর্ণিত তিনি বলেন (সা:) বলেছেন:

“আসরের পর কোন নামাজ নেই সূর্যাস্ত না হওয়া পর্যন্ত, এবং ফজরের পর কোন নামাজ নেই সূর্য উদয় না হওয়া পর্যন্ত। (সহীহ , হাদীস নং ১৭৯৬)

তাছাড়া ফজরের সুন্নতের গুরুত্ব অন্য যেকোনো নফল ও সুন্নত নামাজের থেকে অধিক,

হাদিসে এসেছে আয়েশা রাযিু আনহা বর্ণনা করেন:

করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ফজরের দুই রাকাত সুন্নত নামাজে এত গুরুত্ব দিতেন,যা অন্য কোন নফল বা সুন্নত নামাজের দিতেন না।

সূত্র: বুখারী শরীফ, হাদীছ নং১১৬৩, মুসলিম হা.নং ৭২৪,

হযরত আয়েশা (রাযি:)  হতে বর্ণিত ুল্লাহ (সা:) ইরশাদ করেন,

ফজরের দুই রাকাত (সুন্নত) দুনিয়া ও দুনিয়ার মধ্যে যা কিছু আছে তার চেয়ে উত্তম। সূত্র: সহীহ মুসলিম, হাদীস নং: ৭২৫

সারাংশ: হানাফি মাজহাব অনুযায়ী  ফজরের সম্পূর্ণ জামাত ছুটে যাওয়ার আশঙ্কা না থাকলে সুন্নত পড়ে নিতে হবে, আর ঐ আশংকা যদি থাকে তাহলে জামাতে শরিক হয়ে যাবে।

 

 

 

 

 

 

About Muhammad abdal

আমি মুহাম্মদ আব্দুর রহমান আবদাল।দাওরায়ে হাদীস (মাস্টার্স) সম্পন্ন করেছি ২০২১ ইংরেজি সনে । লেখালেখি পছন্দ করি।তাই সময় পেলেই লেখতে বসি। নিজে যা জানি তা অন্যকে জানাতে পছন্দ করি,তাই মুসলিমবিডি ওয়েব সাইটে লেখা প্রকাশ করি। ফেসবুকে ফলো করুন👉 MD ABDALツ

Check Also

কেন মানুষের অন্তর কঠোর হয়

যেসব কারণে অন্তর শক্ত হয়

কলব মানুষকে নিয়ন্ত্রণ করে। সুস্থ কলব মানুষকে কল্যাণের পথদেখায়। আর অসুস্থ কলব মানুষকে কুপথে নিয়ে …

Powered by

Hosted By ShareWebHost